Dainik Sangbad – দৈনিক সংবাদ
Image default
FEATURED ট্রেন্ডিং

ভাড়াটিয়া ফ্ল্যাট খালি করছেন না, চার দিন ধরে সিঁড়িতেই বসে রইলেন বাড়ীওয়ালা! তারপর কি হলো?

উত্তরপ্রদেশের গ্রেটার নয়ডার স্কাই হাউস সোসাইটিতে একটি বৃদ্ধ দম্পতি তাদের নিজস্ব ফ্ল্যাটের সিঁড়িতে রাত কাটাতে বাধ্য হয়েছেন। আসলে, বৃদ্ধ দম্পতি অভিযোগ করেছেন যে তারা তাদের ফ্ল্যাটে থাকতে চান। কিন্তু ভাড়ার চুক্তি শেষ হওয়ার পরও ভাড়াটিয়া ফ্ল্যাট খালি করতে রাজি নয়।

তথ্য অনুযায়ী, বৃদ্ধ সুনীল কুমার মুম্বাইয়ের ভারত পেট্রোলিয়ামে চাকরি করতেন। কয়েক বছর আগে, তিনি একটি ফ্ল্যাট কিনেছিলেন যাতে অবসর নেওয়ার পরে তিনি গ্রেটার নয়ডায় নিজের ফ্ল্যাটে আসতে পারেন। এর আগে ফ্ল্যাট ভাড়ায় ছিল। সম্প্রতি চুক্তি শেষ হয়ে যায়। তখন সুনীল বাবু আসেন নিজের ফ্ল্যাটে থাকতে। কিন্তু ভাড়াটিয়া তার ফ্ল্যাট খালি করতে প্রস্তুত নয়। এ কারণে গত ৪ দিন ধরে সিঁড়িতে জীবনযাপন করতে বাধ্য হয়েছেন তিনি। প্রীতি গুপ্তা নামে এক মহিলা জুলাই মাসে তাঁর ফ্ল্যাট ভাড়া নিয়েছিলেন। এ সময় ১১ মাসের ভাড়া চুক্তি হয়। সেই সময়ে, সুনীল কুমারের চাকরিতে ১ বছর বাকি ছিল। এরপর তিনি এখানে শিফট করতে চেয়েছিলেন।

ফ্ল্যাটের মালিক সুনীল কুমারের স্ত্রী রাখি গর্গ বলেছেন যে প্রীতিকে ভাড়া চুক্তি শেষ করার পরে ফ্ল্যাটটি খালি করতে বলা হয়েছিল। কিন্তু তিনি ফ্ল্যাট খালি করতে রাজি নন। এখন তার স্বামীর চাকরি শেষ হয়েছে এবং তিনি অবসর গ্রহণের পর বাকি জীবন নয়ডায় থাকতে চান। কিন্তু ফ্ল্যাট খালি না থাকায় সিঁড়িতে থাকতে বাধ্য হন তারা। ভাড়া চুক্তি শেষ হওয়ার আগেই ভাড়াটিয়াকে বাড়ি খালি করার জন্য মেসেজ করা হয়েছিল। তারপর কয়েকদিন সময় চাইলেন তিনি। কিন্তু এখন পর্যন্ত ফ্ল্যাট খালি হয়নি। ঘরের বাইরে জিনিসপত্র রেখে সিঁড়িতে থাকতে হয়।

একইসঙ্গে ভাড়াটিয়া প্রীতি তার সন্তানকে নিয়ে এই ফ্ল্যাটে থাকেন। বাড়িওয়ালার বিরুদ্ধে হামলা ও গৃহবন্দি করার অভিযোগ তুলেছেন প্রীতি। এই বিষয়ে নয়ডা পুলিশ বলছে, বিষয়টি ভাড়াটিয়া এবং বাড়িওয়ালার মধ্যে। ভাড়ার চুক্তি শেষ হওয়ার পর তাকে ফ্ল্যাটটি খালি করতে বলা হচ্ছে। একইসঙ্গে ভাড়াটিয়া লাঞ্ছিত ও শ্লীলতাহানির অভিযোগ এনেছে, এ বিষয়ে তদন্ত চলছে।

Related posts

অগ্রহায়ণ বা পৌষ মাসে মা লক্ষ্মীর প্রিয় এই গাছ বাড়িতে লাগান! কেটে যাবে অর্থিক অনটন

News Desk

কথা রাখলাম সোনা, আমি মরে গেলে… বৌদিকে ‘সুইসাইড নোট’ দিয়ে আত্মহত্যা যুবকের

News Desk

রাস্তার মাঝখানে দাগ কেটে দেওয়া হয় কেন?

News Desk