Dainik Sangbad – দৈনিক সংবাদ
Image default
FEATURED ট্রেন্ডিং

এই পাঁচটি কারণে গুজরাট বিধানসভা নির্বাচনে ধরাশায়ী বিজেপি বিরোধীরা, জানেন কি কি?

গুজরাট বিধানসভা নির্বাচনে প্রবল পরাক্রম নিয়ে আবারও সেই রাজ্যে ক্ষমতায় ফিরেছে ভারতীয় জনতা পার্টি। এখন পর্যন্ত ভোট গণনার ট্রেন্ডে, বিজেপি ১৫৭টি আসনে এগিয়ে রয়েছে এবং বিরোধী দল কংগ্রেস আর আম আদমি পার্টিকে অনেক পিছনে ফেলে দিয়েছে। কংগ্রেস বর্তমানে গুজরাটে ১৭টি আসনে এগিয়ে থাকলেও অরবিন্দ কেজরিওয়ালের AAP মাত্র পাঁচটি আসনে এগিয়ে রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির হোম স্টেট হওয়ার কারণে, গুজরাটের ফলাফল কি হবে সেই বিষয়ে সারা দেশের কৌতুহল ছিল আর এখানে জিতে বিজেপি প্রমাণ করেছে যে দুই দশকেরও বেশি সময় ধরে ক্ষমতায় থাকা সত্ত্বেও তাদের জাদু অব্যাহত রয়েছে।

রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে গুজরাটে বিজেপির বড় জয়ের ৫টি কারণ গুলো কি কি? রইলো বিশ্লেষণ…

আম আদমি পার্টি এবং কংগ্রেসের মধ্যে যুদ্ধে বিরোধী ভোট কাটাকুটি হয়ে যায়:

গুজরাটে, ২০২২ সালের আগে প্রায় সব নির্বাচনে প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বিতা শুধুমাত্র দুটি দলের মধ্যে হয়েছে। ১৯৯০ সাল থেকে, কংগ্রেস এবং ভারতীয় জনতা পার্টি সেই রাজ্যের একমাত্র দুটি প্রধান দল ছিল এবং রাজ্যের রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বিতা তাদের চারপাশেই কেন্দ্রীভূত ছিল। কিন্তু এবারের নির্বাচনে কংগ্রেস এবং বিজেপি ছাড়াও আপ দৃশ্যপটে উঠতে থাকে। ভোটের ফলাফল বিশ্লেষণ করে জানা যায়, বিজেপির নিজস্ব ভোটব্যাঙ্ক অক্ষুণ্ণ আছে কিন্তু আম আদমি পার্টি কংগ্রেসের ভোট ব্যাংকে কিছুটা ধাক্কা দিতে সক্ষম হয়েছে। স্বাভাবিকভাবেই, এর ফলে কংগ্রেসের সম্ভাবনা অনেকাংশে প্রভাবিত হয়ে গেছে, অন্যদিকে বিজেপি এতে লাভবান হয়েছে। গুজরাটে বিজেপির ক্ষমতায় ফিরে আসার বিষয়ে খুব কম লোকেরই সন্দেহ ছিল, কিন্তু কংগ্রেস এবং এএপি-র মধ্যে ভোটের বিভাজন বিজেপির জয়কে অনেক ‘বড়’ করে তুলেছে। ভোটের শতাংশ সম্পর্কে বললে, গুজরাটে বিজেপি পেয়েছে ৫২ শতাংশ ভোট, কংগ্রেস পেয়েছে ২৭ শতাংশ ভোট এবং আম আদমি পার্টি প্রায় ১৩ শতাংশ ভোট পেয়েছে।

ভালো নির্বাচন ব্যবস্থাপনা:

বিজেপির নির্বাচনী ব্যবস্থাপনা কংগ্রেস ও আম আদমি পার্টির চেয়ে ভালো ছিল এবং ফলাফলে তার প্রতিফলন দেখা গেছে। বুথ স্তরে পরিচালনার জন্য বিজেপি বহু অংশে স্বীকৃতি পেয়েছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে, দলটি তার মূল ভোটারদের কাছে বৃহৎ পরিসরে পৌঁছতে সক্ষম হয়েছে। এমনিতেই গুজরাট রাজ্যে বিজেপির সাংগঠনিক কাঠামো খুবই মজবুত। কংগ্রেস এবং আপ জনশক্তি এবং অর্থ শক্তির দিক থেকে বিজেপির নির্বাচন পরিচালনার কাছাকাছিও আসতে পারেনি।

ব্র্যান্ড মোদি প্রচণ্ড ঝড়:

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নিজ রাজ্য হওয়ায় গুজরাটের ফলাফলের দিকে গোটা দেশের বিশেষ নজর ছিল। রাজ্যের প্রচারে প্রবলভাবে ফোকাস করে প্রধানমন্ত্রী মোদিও অনেগুলি সমাবেশ করেছেন। এর সাথে, বিজেপি সেই রাজ্যে নিজেদের কর্মচারীদের দারুন ভাবে মোতায়েন করেছিল, যা দলের পক্ষে পরিবেশ তৈরি করতে কাজ করেছিল। এবং বলাই বাহুল্য প্রধানমন্ত্রী মোদির প্রচার বিজেপির জয়ের পথ সহজ করে দিয়েছে। প্রচারের শেষ পর্যায়ে, তিনি গুজরাটে ৫০ কিলোমিটার দীর্ঘ রোডশো করেছিলেন, যা পরিবেশ সম্পূর্ণরূপে বিজেপির পক্ষে তৈরি করেছিল।

টিকিট দেওয়ার ক্ষেত্রে অনেক অভিজ্ঞদের ‘বিশ্রাম’ দেওয়া হয়েছে:

সম্পূর্ণ পরিকল্পনা নিয়ে এ বার টিকিট বণ্টন করেছে বিজেপি। অ্যান্টি-ইনকাম্বেন্সির কথা মাথায় রেখে এবার নতুন মুখের দিকে নজর দিয়েছে দলটি। প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রূপানি এবং নীতিন প্যাটেলের মতো প্রবীণ নেতাদের টিকিট দেওয়া হয়নি। দল এবার তরুণ মুখদের সুযোগ দিয়েছে। এই কৌশলের মাধ্যমে দলটি ভোটারদের কাছে একটি বার্তা দিতে সফল হয়েছে যে, দল প্রতিনিয়ত নিজেকে আপডেট রাখে এবং এতে কর্মীদের পূর্ণ অগ্রাধিকার দেওয়া হয়।

বিরোধীদের বড় মুখের অভাব, দুর্বল সংগঠন :

গুজরাট নির্বাচনে বিরোধী দল কংগ্রেস এবং আপে বিজেপির চেয়ে বড় মুখ ছিল না। এর ফলে পরিবেশ সম্পূর্ণরূপে বিজেপির পক্ষে তৈরি হয়ে যায়। আম আদমি পার্টি ইসুদান গাধভীকে মুখ্যমন্ত্রী প্রার্থী ঘোষণা করেছিল। এমনকি ক্যাডার এবং সাংগঠনিক স্তরেও বিজেপিকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা কংগ্রেস এবং আম আদমি পার্টির পক্ষে কঠিন ছিল।

এই সবকটি কারণ ভোটের ফলাফল হয়ে ব্যালট বক্সে বিজেপির পক্ষে রায় দিয়েছে। তাই গুজরাট রাজ্যে বিজেপির ঐতিহাসিক জয় এখন সময়ের অপেক্ষা।

Related posts

একটি কলেই অক্সিজেন নিয়ে বাড়িতে আসবে অ্যাম্বুলেন্স, আজ থেকে কলকাতায় ‘অক্সিজেন অন হুইলস’

News Desk

শহীদ CRPF জওয়ানের বোনের বিয়ে, সব দায়িত্ব কাঁধে তুলে নিলেন মৃত জওয়ানের সাথী সৈনিকরা

News Desk

রান্নাঘরে কখনোই ফুরিয়ে যেতে দেবেন না এই চারটি জিনিস, জীবনে আসতে পারে আর্থিক সমস্যা

News Desk
0 0 votes
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x