Dainik Sangbad – দৈনিক সংবাদ
Image default
FEATURED ট্রেন্ডিং

ভিডিও কলে আলাপ! বিয়ে করতে এসে সামনাসামনি প্রেমিককে দেখে রেগে কাঁই প্রেমিকা

উত্তরপ্রদেশের হামিরপুর জেলার থেকে এক অভিনব ঘটনা সামনে এসেছে। ফেসবুকে পরিচয়, বন্ধুত্ব। ভিডিও কলে মাঝেমধ্যেই কথা হতো। বন্ধুত্ব প্রেমে পরিণত হলে বিয়ে করতে ৬০০ কিলোমিটার জার্নি করে হামিরপুরে আসেন বান্ধবী। প্রেমিকা প্রেমিকের মুখোমুখি হলে তার স্বপ্ন ভেঙ্গে যায়। ভিডিও কলে এতোদিন কথা হলেও শুধু মুখই দেখা হতো। সামনাসামনি দেখা হলে দেখেন প্রেমিকের আকার ছোট ছিল এবং তিনি একজন প্রতিবন্ধীও ছিলেন। ফেসবুকের বয়ফ্রেন্ডের অবস্থা দেখে হতাশ হয়ে যান গার্লফ্রেন্ড। তিনি থানায় পৌঁছে প্রেমিকের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ করে ফিরে আসেন।

সূত্র অনুযায়ী, ৮ মাস আগে ফেসবুকে হামিরপুরের রথ এলাকার বাসিন্দা এক যুবকের সঙ্গে আজমগড় জেলার এক তরুণীর বন্ধুত্ব হয়। বন্ধুত্বের পর দুজনেই দুজনের প্রেমে পড়েন। এই প্রেম এতটাই বেড়ে যায় যে মেয়েটি যুবককে বিয়ে করতে প্রস্তুত হয়ে যায়।

বৃহস্পতিবার গভীর রাতে মেয়েটি যুবকের কাছে পৌঁছালেও সেখানে তার স্বপ্ন যেন মুহূর্তেই ভেঙে যায়। মেয়েটি দেখে তার ফেসবুক প্রেমিক শারীরিক ভাবে প্রতিবন্ধী এবং তার উচ্চতাও ছোট। সেটা চোখে পড়ার পরই বিষয়টা জটিল আকার নেয়।

প্রেমিকাকে সামনে দেখে চমকে ওঠে মেয়েটি

ফেসবুকে বন্ধুত্বের পর আজমগড়ের একটি মেয়ে এবং রথের মাঝগাওয়ানের বাসিন্দা অনিল কুমারের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক চলছিল। প্রায় আট মাস আগে ফেসবুকে দুজনের পরিচয় হয়। উভয়ের মধ্যে চ্যাটিং এবং ভিডিও কলও হতে থাকে। একে অপরের নম্বর শেয়ার করে নেয়। এই সময় মেয়েটি বিয়ের প্রস্তাব দেয়। বৃহস্পতিবার মেয়েটি আজমগড় থেকে বিয়ের জন্য যুবকের সাথে দেখা করতে আসে। গভীর রাতে প্রেমিকের বাড়িতে পৌঁছলে তার হুঁশ উড়ে যায়। মেয়েটি দেখল যে তার প্রেমিকের খর্বাকৃতি এবং সে একজন প্রতিবন্ধী। এটা দেখে ওই তরুণী মেজাজ হারিয়ে ফেলেন।

প্রতারণার অভিযোগে যুবক

ওই তরুণী যুবকের বাড়ির বাইরে তোলপাড় সৃষ্টি করে। যুবক কে সে জালিয়াতির অভিযোগে অভিযুক্ত করে। মেয়েটি ওই যুবককে বলে, তুমি প্রতিবন্ধী হওয়ার বিষয়টি গোপন করেছ, যা ভুল। মেয়েটি বলেছিল যে অনিল সবসময় ভিডিও কলে তার মুখ দেখাত, যার কারণে সে কখনই জানতে পারেনি যে অনিল প্রতিবন্ধী। তিনি প্রতারণা করেছেন।

পুলিশ মেয়েটিকে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেছে

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে মেয়েটিকে বুঝিয়ে শান্ত করে। পরে পুলিশ মেয়েটির পরিবারের সদস্যদের খবর দেয়। সকাল নাগাদ মেয়েটির পরিবারের সদস্যরাও সেখানে পৌঁছে তাকে সঙ্গে নিয়ে ফিরে যায়। ইন্সপেক্টর দীনেশ সিং জানিয়েছেন, সোশ্যাল মিডিয়ায় ওই যুবকের সঙ্গে প্রেম করেছিল মেয়েটি। কিন্তু বাস্তবে দেখা যায় পর তার স্বপ্ন ভঙ্গ হয়। বর্তমানে মেয়েটিকে স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

Related posts

২০২২ সালেই পৃথিবী থেকে বিদায় নিতে পারে করোনা ভাইরাস! তবে মানতে হবে একটি শর্ত

News Desk

এই নারীর সৌন্দর্যে পাগল পুরুষরা, কিন্তু সত্যিটা জানার সাথে সাথেই তারা পালিয়ে যায়! কেন?

News Desk

মামীর সঙ্গে ভাগ্নের পরকীয়া ঘিরে সন্দেহ। ভয়ঙ্কর ঘটনার সাক্ষী থাকল দুর্গাপুর

News Desk