Dainik Sangbad – দৈনিক সংবাদ
Image default
FEATURED ট্রেন্ডিং

পুরুষদের বিরুদ্ধে যৌন ধর্মঘট ঘোষণা করলেন মহিলারা! কারন কি জানলে অবাক হবেন

সেক্স স্ট্রাইক বা যৌন ধর্মঘট! বিষয়টি শুনলেই অবাক লাগার কথা। কিন্তু সম্প্রতি এই দেশের নারীরা এই নিয়ে প্রচারে উত্তাল। বিষয়টা? শুনলে অবাক হবেন।

গর্ভপাতের সাংবিধানিক অধিকার বাতিল করেছে আমেরিকার আদালত। একটি সিদ্ধান্তে, আদালত ৫০ বছরের পুরনো একটি সিদ্ধান্তকে বাতিল করেছে যা আইনত গর্ভপাতকে অনুমোদন করেছিল। এরপর থেকে আমেরিকার বিভিন্ন শহরে বিক্ষোভ চলছে।

এই সিদ্ধান্ত নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়াতেও। #Abstinence এবং #SexStrike আমেরিকাতে টুইটারে ট্রেন্ড হচ্ছে। অনেক মহিলা বলেছেন যে গর্ভপাতের আইনি অধিকার অব্যাহত রাখা উচিত এবং তারা এই বিষয়ে পুরুষদের সমর্থনও চাইছেন।

বিষয়টি নিয়ে টুইটারে লোকজন বিভিন্ন প্রতিক্রিয়া দিচ্ছেন। টেকনিশিয়ান ব্রায়ানা ক্যাম্পবেল, 24, nypost.com কে বলেছেন – আপনি যদি একজন পুরুষ হন এবং আমার অধিকারের জন্য রাস্তায় না আসেন তবে আপনি আমার সাথে যৌন সম্পর্ক করার যোগ্য নন।

একই সঙ্গে ২২ বছর বয়সী ইভেন্ট কো-অর্ডিনেটর ক্যারোলিন হিলি বলেন- নারীর অধিকারের চেয়ে পুরুষের জন্য যৌনতা বেশি গুরুত্বপূর্ণ। নতুন গর্ভপাত আইনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে ম্যানহাটনের ইউনিয়ন স্কয়ারে আসা এক মেয়ে বলেন- নারীদের গর্ভপাতের সাংবিধানিক অধিকার থেকে কেড়ে নেওয়া উচিত নয়।

ধর্ষণের শিকার মায়া ডেমরি জোর দিয়ে বলেছেন যে মহিলাদের “তাদের অধিকার ফিরে পেতে আইনি কাঠামোর মধ্যে থেকে সবকিছু করতে হবে”৷ দেমারী বলেন, এখানে ধর্ষণের পর যেসব নারী/মেয়েরা অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে তাদের কষ্ট আমরা কল্পনাও করতে পারি না। মায়া ডেমরি বলেছেন- বিশ্ব যদি মনে করে যে তারা সব সময় নারী নির্যাতন করতে পারে, তবে তা ঠিক নয়।

অপর এক নারী বলেন, আমরা অনাকাঙ্ক্ষিত গর্ভধারণের ঝুঁকি নিতে পারি না। এইজন্য আমরা আর কোন পুরুষের সাথে সহবাস করব না, এমনকি সে আমাদের স্বামী হলেও, যদি না আমরা নিজেরা গর্ভবতী হতে চাই।

অপর এক নারী বলেন, আমরা অনাকাঙ্ক্ষিত গর্ভধারণের ঝুঁকি নিতে পারি না। এইজন্য আমরা আর কোন পুরুষের সাথে সহবাস করব না, এমনকি সে আমাদের স্বামী হলেও না।

এই বিষয়ে #SexStrike-এর সাথে টুইটারে একটি প্রচার চালানো হয়েছিল। হ্যাশট্যাগে ৫০ হাজারের বেশি টুইট করা হয়েছে। এর সাথে টুইটারে #Abstinenceও ট্রেন্ড করেছে। বিরত থাকা মানে সহবাস না করা। একজন মহিলা ইন্টারনেট ব্যবহারকারী গর্ভপাত আইনের সমর্থনে পুরুষদের বলেছিলেন, যদি আমাদের পছন্দ অস্বীকার করা হয়, তবে আপনার পছন্দও অস্বীকার করা হবে। উল্লেখ্য, সুপ্রিম কোর্টের এই সিদ্ধান্তর বাইডেনও নিন্দা করেছেন।

Related posts

বাবার সাথে ছাড়াছাড়ির পর ১০ বছর ধরে কাকুর সঙ্গে থাকছিল মা! মর্মান্তিক পরিণতির সাক্ষী ছেলে

News Desk

বিশ্বব্যাপী উদ্বেগের মধ্যেই ভারতে আবারও কমল করোনা সংক্রমণ, কিন্তু ঊর্ধ্বমুখী মৃত্যুহার

News Desk

রাজ্যে চলবে প্রাক বর্ষার বৃষ্টি? কী বলছে আবহাওয়া দফতর?

News Desk