Dainik Sangbad – দৈনিক সংবাদ
Image default
FEATURED ট্রেন্ডিং

প্রতি বছর প্রায় একই দিনে ভাদ্র সংক্রান্তির দিনই কেন হয় বিশ্বকর্মা পুজো! কারণ জানেন

বিশ্বকর্মা পুজো মানেই দুর্গাপুজোর ঘণ্টা বেজে গেল। আকাশে ঘুড়ির মেলা মন নিয়ে যায় সেই ছোটবেলায়। তবে এই বছরের ছবিটা আলাদা। বিশ্বকর্মা পুজো এবং মহালয়া একই তারিখে এবার। কিন্তু তার ৩৫ দিন পরে এবার উদযাপিত হবে দুর্গা পুজো। তাই বিশ্বকর্মা পুজো এসে গেলেও আকাশে-বাতাসে পুজো পুজো রব শুরু হতে এখনও দেরি আছে।

তবু ছোটবেলা থেকেই দুর্গাপুজোর আগমন ঘণ্টা হিসেবে জড়িয়ে আছে বিশ্বকর্মা পুজো। তখন থেকেই বিশ্বকর্মা পুজো ঘিরে একটা প্রশ্ন মনে বারবার উঁকি মেরেছে। তা হল, অন্য সব দেব-দেবীর তিথি মেনে হওয়ায় ক্যালেন্ডারে কোনও নির্দিষ্ট দিন না থাকলেও কেন বিশ্বকর্মা পুজো প্রায় প্রতি বছর ১৭ সেপ্টেম্বর উদযাপিত হয়?

ভাদ্র মাসে যে সমস্ত পুজো ও পার্বনের উৎসব রয়েছে, গণেশ চতুর্থী তার মধ্যে অন্যতম। এরপর রয়েছে বিশ্বকর্মা পুজো। বাগ্র মাসের সংক্রান্তির দিন পালিত হয় বিশ্বকর্মা পুজো। ২০২১ সালে বিশ্বকর্মা পুজোর তিথি ১৭ সেপ্টেম্বর রয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। প্রতিবারের মতো এবারেও ১৭ সেপ্টেম্বর বিশ্বকর্মা পুজো। সেদিনই রয়েছে প্রদোশ একাদশী।

বিদ্যার দেবী সরস্বতী, অর্থের দেবী লক্ষ্মী বা শক্তির দেবী দুর্গা-কালী সবার পুজোরই কোনও বাঁধা ধরা তারিখ নেই। কিন্তু শিল্পের দেব বিশ্বকর্মার পুজো মানেই ১৭ সেপ্টেম্বর। ইংরাজি ক্যালেন্ডারে এই দিনটি কেন স্থির তা জানতে একটু পঞ্জিকা উলটে দেখতে হবে।

হিন্দু ধর্মে সব দেব-দেবীরই পুজোর তিথি স্থির হয় চাঁদের গতি প্রকৃতির উপর নির্ভর করে। এ বিষয়ে চান্দ্র পঞ্জিকা অনুসরণ করা হয়ে থাকে। কিন্তু বিশ্বকর্মার পুজোর তিথি স্থির হয় সূর্যের গতি প্রকৃতির উপর ভিত্তি করে। যখন সূর্য সিংহ রাশি থেকে কন্যা রাশিতে গমন করে, তখনই সময় আসে উত্তরায়ণের। দেবতারা নিদ্রা থেকে জেগে ওঠেন এবং শুরু হয় বিশ্বকর্মার পুজোর আয়োজন। হিন্দু পঞ্জিকার দুই প্রধান শাখা সূর্যসিদ্ধান্ত এবং বিশুদ্ধসিদ্ধান্ত- উভয়েই এ বিষয়ে একমত।

আরও একটু স্পষ্ট করে বলতে হলে, বিশ্বকর্মার পুজোর দিন ভাদ্র মাসের শেষ তারিখে নির্ধারিত। এই ভাদ্র সংক্রান্তির আগে বাংলা পঞ্জিকায় পাঁচটি মাসের উল্লেখ মেলে। এই পাঁচটি মাসের দিন সংখ্যাও প্রায় বাঁধাধরাই- সাকুল্যে ১৫৬টি দিন! এই নিয়ম ধরে বিশ্বকর্মা পুজোর যে বাংলা পঞ্জিকা মতে তারিখটি বেরোয়, তা ইংরেজি ক্যালেন্ডারের ১৭ সেপ্টেম্বরেই পড়ে। কোনও কোনও বছরে এই পাঁচ মাসের মধ্যে কোনওটা যদি ২৯ বা ৩২ দিনের হয়, একমাত্র তখনই বিশ্বকর্মা পুজোর দিন পিছিয়ে বা এগিয়ে যায়। তবে তা খুবই ব্যতিক্রমী ঘটনা।

এই বছরেও নিয়মের অন্যথা হয়নি। সূর্য নিয়ম মেনে প্রতিষ্ঠিত হয়েছেন কন্যা রাশিতে। ভাদ্র সংক্রান্তির আগে বাংলা পঞ্জিকার পাঁচটি মাসের দিনসংখ্যাও ১৫৬টিই থেকেছে এবং ১৭ সেপ্টেম্বর উদযাপিত হচ্ছে বিশ্বকর্মা পুজো। আকাশ রঙিন হয়েছে ঘুড়ির সম্ভারে। আসন্ন উত্‍সবের সূচনার বার্তা নিয়ে এসেছে তারা।

Related posts

দীপাবলী পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে দেশের সবথেকে সস্তা স্মার্টফোনের জন্যে! কত দাম, কি ফিচারস

News Desk

কলাপাতায় খাওয়ার খাবার এত গুন জানতেন! জেনে নিন এর আশ্চর্য সব স্বাস্থ্য উপকারিতা

News Desk

চুরি করতে এসে জিনিসপত্র টানতে টানতে ক্লান্ত, গৃহস্থের বাড়ির ভিতরেই ঘুমিয়ে পড়ল চোর

News Desk
0 0 votes
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x