Dainik Sangbad – দৈনিক সংবাদ
Image default
FEATURED ট্রেন্ডিং

‘খুব বাজে গান করে’, অভিযোগ পেয়ে সোশ্যাল মিডিয়া স্টারকে থানায় আটক করলো পুলিশ

গলায় নাকি সুর নেই। তাও গান করেন। এই অভিযোগে সোশ্যাল মিডিয়া স্টার হিরো আলমকে পড়তে হলো সমস্যায়। তার গাওয়ার স্টাইল নিয়ে তাকে বিপাকে পড়তে হয়েছে বলে দাবি করেছেন তিনি। বাংলাদেশ পুলিশ ওনাকে ধরে নিয়ে যায়। থানায় তালাবদ্ধ করে প্রায় ৮ ঘণ্টা জেরা করেন। শুধু তাই নয়, আলমকে আর কখনো ক্লাসিক্যাল গান না গাইতে বলেছে পুলিশ। গায়ক হিসেবে তাকে খুব খারাপ বলে আখ্যা দিয়েছে পুলিশ। সংবাদ সংস্থাকে একথা জানিয়েছেন হিরো আলম নিজেই।

প্রসঙ্গত জানিয়ে রাখা যাক যে আলম বাংলাদেশের বাসিন্দা। প্রায় ২০ লাখ মানুষ তাকে ফেসবুকে ফলো করেন। একই সময়ে, তার ইউটিউব চ্যানেলে ১৪ লাখেরও বেশি সাবস্ক্রাইবার রয়েছে। নিজেকে একজন গায়ক, অভিনেতা এবং মডেল হিসেবে বর্ণনা করা আলমের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপকভাবে দেখা যায়। গান গাওয়ার কারণেও প্রায়ই শিরোনামে থাকেন তিনি।

কিন্তু গত সপ্তাহে শুধু গানের কারণেই বিপাকে পড়তে হয়েছে তাকে। লোকেরা অভিযোগ করেছিল যে আলম খুব অসঙ্গতভাবে গেয়েছেন এবং শাস্ত্রীয় গানকে টেম্পার করেছেন। হিরো আলম জানায়, গত সপ্তাহে পুলিশ তাকে মানসিকভাবে নির্যাতন করেছে। পুলিশ তাকে ক্লাসিক্যাল গান গাওয়া বন্ধ করতে বলে। পুলিশ আরও বলেছে, গায়ক হিসেবে তিনি খুবই কুৎসিত। শেষ পর্যন্ত, আলমকে ক্ষমা চেয়ে সই করান।

হিরো আলম বলেন- ‘পুলিশ সকাল ৬টায় আমাকে তুলে নিয়ে ৮ ঘণ্টা ধরে রাখে। তিনি আমাকে জিজ্ঞেস করলেন আমি কেন নোবেল বিজয়ী রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর এবং বাংলাদেশের জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের গান গাই? এ ঘটনায় ঢাকার মুখ্য গোয়েন্দা হারুন অর রশিদ সাংবাদিকদের বলেন, আলমের বিরুদ্ধে অনেক অভিযোগ পেয়েছি। বর্তমানে পুলিশের ইউনিফর্ম পরা এবং ভিডিওতে অনুমতি ছাড়া ঠাকুর ও নজরুলের গান গাওয়ার জন্য ক্ষমা চেয়েছেন আলম।

হারুন বলেন- ‘তিনি (আলম) গানের ঐতিহ্যবাহী স্টাইল পুরোপুরি পাল্টে দিয়েছেন… তিনি আমাদের আশ্বস্ত করেছেন যে তিনি এটির পুনরাবৃত্তি করবেন না।’

পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদের হাত থেকে মুক্তি পাওয়ার পর, আলম একটি নতুন ভিডিও প্রকাশ করেন, যাতে তিনি জেলের পোশাকে নিজেকে জেলের পিছনে দেখিয়েছিলেন। ভিডিওটিতে দুঃখজনকভাবে বলা হচ্ছিল যে তাকে ফাঁসি দেওয়া হবে।

ব্যবহারকারীরা প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন

একই সঙ্গে আলমের সঙ্গে এই আচরণ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ক্ষোভের সৃষ্টি করে। অনেক ব্যবহারকারীকে দেখা গেছে আলমের সমর্থনে দাড়াতে। আলমের গাওয়া খারাপ হলেও মানুষ একে ব্যক্তি অধিকারের ওপর আক্রমণ বলেছে। স্থানীয় সাংবাদিক আদিত্য আরাফাত লিখেছেন- ‘আমি আলমের গান বা অভিনয়ের ভক্ত নই। তবে যদি তার কণ্ঠকে চাপা দেওয়ার চেষ্টা করা হয়, আমি তার বিরুদ্ধে দাঁড়াবো।

সানজিদা খাতুন রাখি লিখেছেন- ভাঙবেন না। আপনি হিরো। অন্যরা যাই বলুক না কেন, আপনিই আসল নায়ক। তবে, কিছু লোক তার গাওয়ার স্টাইল দিয়ে আসল গানটি নষ্ট করার জন্য আলমের সমালোচনাও করেছেন।

Related posts

সেক্সুয়াল ফ্যান্টাসির কারণে স্ত্রীর সাথে জঘন্য কান্ড ঘটালেন স্বামী! শুনলে শিউরে উঠবেন

News Desk

জনসমক্ষে এলো ভিকি ও ক্যাটরিনার বিয়ের ছবি! দেখুন বিয়ের সাজে কেমন লাগছে তাদের?

News Desk

ভারতীয় রেলে এবারে স্লিপার ক্লাসের টিকিটেই করা যাবে এসিতে ভ্রমণ! কিভাবে?

News Desk