Dainik Sangbad – দৈনিক সংবাদ
Image default
FEATURED ট্রেন্ডিং

ছেলেকে সাথে নিয়ে মলে গিয়ে আর তাকে বাড়ি ফেরাননি স্বামী! ছেলের খোঁজে দিশেহারা মা

মধ্যপ্রদেশের গোয়ালিয়রে একজন মা তার পাঁচ বছরের শিশুকে পুনরায় ফিরে পাওয়ার জন্য পুলিশের কাছে আবেদন করছেন। প্রায় দুই মাস আগে শপিং মলে যাওয়ার অজুহাতে ছেলেকে নিয়ে যায় স্বামী। তারপর আর ফিরে আসেনি। মহিলার স্বামী বিএসএফ-এ পোস্টিং, যার পোস্টিং জম্মু ও কাশ্মীরে। মহিলা জানিয়েছেন, স্বামী মনে হচ্ছে ছেলেকে গোয়ালিয়রের একটি বোর্ডিং স্কুলে ভর্তি করিয়েছেন। টেকনপুরে বসবাসকারী মহিলা উমা পুলিশের কাছে আবেদন জানালেন তার ছেলেকে ফিরিয়ে দেওয়ার জন্য। ২০১৩ সালে, উমা বিএসএফ, টেকানপুরে নিযুক্ত কনস্টেবল নির্ভয় কুমারকে বিয়ে করেছিলেন। বিয়ের কিছুদিন পর স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হয়। পাঁচ বছর আগে এই দম্পতির ঘরে জন্ম নেয় ছেলে প্রণয়। কিছুদিন আগে তার স্বামী জম্মু ও কাশ্মীর সীমান্তে পোস্টড ছিলেন।

উমা জানান, দুই মাস আগে ২০২২ সালের ৭ জুন স্বামী নির্ভয় টেকানপুরে আসেন এবং শিশুটিকে গোয়ালিয়রের মলে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে নিয়ে যান, কিন্তু স্বামী ছেলেকে বাড়িতে ফিরিয়ে আনেননি। উমা খোঁজ করলে জানা যায়, স্বামী শিশু প্রণয়কে গোয়ালিয়রের শিবপুরী লিঙ্ক রোডে অবস্থিত ভারতীয় বিদ্যা নিকেতন স্কুলের বোর্ডিং হোস্টেলে ভর্তি করিয়ে তারপর জম্মু ও কাশ্মীরে চলে যান।

উমা শিশুটির সঙ্গে দেখা করতে গোয়ালিয়রের বোর্ডিং স্কুলে পৌঁছান। মায়ের অভিযোগ, স্কুল ম্যানেজমেন্ট শিশুটির সঙ্গে দেখা করতে দেয়নি। বাবার সম্মতি ছাড়া শিশুকে না দেওয়ার কথা বলেছে স্কুল কর্তৃপক্ষ। উমা তার স্বামীর সাথে কথা বললে সে তাকে ডিভোর্সের জন্য হুমকি দিতে থাকে। উমা পুলিশ অফিসারদের কাছে তার সন্তানকে তার জন্য নিয়ে আসার জন্য অনুরোধ করেন।

পুলিশকে সাহায্য করতে বাধ্য, পারিবারিক আদালতে যাওয়ার পরামর্শ

ছেলের জন্য মায়ের ডাক শুনে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়ে পুলিশও। এএসপি মৃগাখি ডেকা জানান, ২ দিন আগেও উমা তার কাছে এসেছিলেন। তিনি অভিযোগ করেছিলেন যে তার স্বামী তাকে তার সন্তানের সাথে দেখা করতে দিচ্ছেন না। তার স্বামী তার সন্তানকে একটি বোর্ডিং স্কুলে ভর্তি করেছে। এ নিয়ে দুই স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বিরোধ চলছে। এটা আমাদের বিভাগের বিষয় নয়। এ ক্ষেত্রে শিশুটি কার কাছে থাকবে তা পারিবারিক আদালতই ঠিক করবে, তাই ওই নারীকে পারিবারিক আদালতে যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

Related posts

একই সম্পত্তি বন্ধক দিয়ে দুই বারে মোট ২ কোটি টাকা লোন! তারপর…

News Desk

দীঘায় মৎস্যজীবী‌র জালে উঠল দৈত্যাকৃতি কই ভোলা! কত টাকায় বিক্রি হল শুনলে চমকে উঠবেন

News Desk

কিছুদিনের জন্য নিখোঁজ হয়ে যেতে মন চাইছে। এই দেশের সরকার সাহায্য করবে হারিয়ে যেতে চাইলে

News Desk