Dainik Sangbad – দৈনিক সংবাদ
Image default
FEATURED ট্রেন্ডিং

বেঁচে থাকার জন্য মাত্র এই পাঁচটি জিনিস খেতে পারেন এই নারী! ওজন মাত্র ৩৬ কেজি

আমাদের মধ্যে সবাই খাবার খেতে ভালোবাসে। কেউ ভারতীয় খাবার পছন্দ করে আবার কেউ দক্ষিণ ভারতীয় পছন্দ করে। কেউ চাইনিজ আবার কেউ থাই খাবার পছন্দ করে। কিন্তু আপনি কি কল্পনা করতে পারেন যে সারা পৃথিবীতে উপলব্ধ হাজার হাজার খাবারের মধ্যে যদি আপনি মাত্র কয়েকটি খাবার খেতে পারেন? তাহলে ব্যাপারটা কেমন হবে। এমনটা চিন্তা করাও বেশ কঠিন। কিন্তু এমন একজন মহিলা আছেন যিনি সারা বিশ্বের সমস্ত খাবারের মধ্যে মাত্র পাঁচটি জিনিসই খেতে পারেন। যদিও এটি বিশ্বাস করা কঠিন তবে এটি একেবারে সত্য। সর্বোপরি, জেনে নিন কেন মাত্র পাঁচটি খাবার খান এই নারী।

এই মহিলাটি কে

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আলাবামায় বসবাসকারী সামার ক্যারলের (Summer Carroll) বয়স ৩৩ বছর। প্রকৃতপক্ষে, তার পাঁচটি জৈব খাবার ছাড়া বাকি যে কোনো খাদ্য আইটেমেই তীব্র অ্যালার্জি তৈরি হয়। ওই পাঁচটি খাবার ছাড়া অন্য কিছু খাওয়ার চেষ্টা করলেই তার অবস্থা খুবই খারাপ হয়ে যায়।

তার এই অ্যালার্জি একটি হালকা অ্যালার্জি থেকে শুরু করে, অ্যানাফিল্যাক্সিস জাতীয় একটি অ্যালার্জিতে পরিণত হতে পারে, যা মারাত্মক হতে পারে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন যে অ্যানাফিল্যাক্সিস অ্যালার্জির অবিলম্বে চিকিত্সা করা প্রয়োজন, অন্যথায় অবস্থা গুরুতর হতে পারে।

শরীরে নানা সমস্যা ছিল:

সামার ক্যারল এক সাক্ষাৎকারে বলেন, এক গ্রীষ্মকালে আমার এই অবস্থা শুরু হয়। এরপর ধীরে ধীরে আমার শরীর কোনো খাবার হজম করতে পারতো না, এমনকি আমি অর্গানিক খাবারও খেতে পারতাম না। আমি সেই খাবারগুলি খেলেই আমার গ্যাস্ট্রোইনটেস্টাইনাল ব্যথা, ফোলাভাব, আমবাত, মাথা ঘোরা, মস্তিষ্কের ধোঁয়াশা, দ্রুত হৃদস্পন্দন এবং বমি বমি ভাবের মতো সমস্যা শুরু হয়।

সমর আরও বলেন, ‘অ্যালার্জির পাশাপাশি আমারও MCAD (মাস্ট সেল অ্যাক্টিভেশন সিনড্রোম) ছিল। এটি এমন একটি অবস্থা যেখানে শরীরের মাস্ট কোষগুলি এত পরিমাণে রাসায়নিক নির্গত করে, যা শরীরের জন্য ঠিক নয়।’ MCAD একটি অত্যন্ত অ্যালার্জিযুক্ত অবস্থা যেখানে রাসায়নিক, গন্ধ, সিগারেটের ধোঁয়া এমনকি খাবারের সাথে রান্নার ধোঁয়াও শরীরকে প্রভাবিত করে। তিনি বলেন ‘আমি এমন পর্যায়ে পৌঁছেছিলাম যেখানে আমার শরীর অপুষ্টির শিকার ছিল এবং আমার ওজন ছিল মাত্র ৩৬ কেজি। আমার শরীরে এত ব্যথা ছিল যে আমি ১ ঘন্টাও ঘুমাতে পারতাম না। ডাক্তাররা এমনও বলেছিলেন যে আমার জীবনের আর মাত্র কয়েক মাস বাকি।’

গ্রীষ্মকালে এই ৫টি জিনিস খান

সমর আরও বলেন, যেসব জিনিসে অ্যালার্জি হয় সে সব খাওয়া বন্ধ করে দিয়েছি। এ কারণে কিছুটা স্বস্তি পেয়েছি আমি। আমি এমন পাঁচটি জিনিস খুঁজে পেয়েছি যেগুলির প্রতি আমার অ্যালার্জি নেই এবং আমি সেগুলি খেতে পারি সেগুলি হল কালো মটরশুটি, হিমায়িত পালং শাক, হিমায়িত ব্লুবেরি, রোলড ওটস এবং চিকেন৷ তবে এই জিনিসগুলিও একটি নির্দিষ্ট ব্র্যান্ডের হওয়া উচিত। আমি গ্রীষ্মে ভ্রমণ করতে পারি না, কোনো জনাকীর্ণ জায়গায় যেতে পারি না বা বন্ধুদের সাথে খেতে যেতে পারি না। তার এই সমস্যার কথা শুনে অনেকেই অবাক। সকলে তার সুস্থতা কামনা করেছেন।

Related posts

চলতি অর্থবর্ষের কিষাণ বিকাশ পত্র, সেভিংস অ্যাকাউন্ট, NSC ইত্যাদিতে সুদের হার ঘোষণা করল কেন্দ্র

News Desk

দৈনিক সংক্রমণের সাথেই রেকর্ড কমলো মৃত্যুহার, সুস্থতার পথে দেশ

News Desk

পালিয়ে বিয়ে করে কোনো সমস্যায় পড়েছেন? এই মন্দিরে আশ্রয় দেয় স্বয়ং মহাদেব

News Desk