Dainik Sangbad – দৈনিক সংবাদ
Image default
FEATURED ট্রেন্ডিং

৪ বছরের খুদের পড়ায় মন বসতো না! ক্ষিপ্ত হয়ে বাবা-মা এমন করবে ভাবা যায় না

৪ বছরের খুদের পড়ায় মন বসতো না! কিন্তু এই কারণে বাবা-মা যা শাস্তি দিল শুনলে শিউরে উঠতে হয়। বিষয়টা কি?

ঝাড়খণ্ডের জামশেদপুরে ৪ বছর বয়সী এক বাচ্চা মেয়েকে তার বাবা-মা পড়াশোনা না করায় পিটিয়ে হত্যা করেছে। ঘটনাটি গালুডিহ এলাকার। পুলিশ মেয়েটির বাবা ২৭ বছর বয়সী উত্তম মাহাতো এবং ২৬ বছর বয়সী মা অঞ্জনা মাহতোকে গ্রেফতার করেছে। দুজনেই শ্রমিকের কাজ করে। তার আরও একটি মেয়ে আছে, সে তার মামার বাড়িতে থাকে।

Up teacher arrested for smashing students face with cake

দম্পতি পুলিশকে জানিয়েছেন, বারবার বোঝানোর পরও ছোট মেয়ে পড়াশোনায় কোনো আগ্রহ দেখাচ্ছিল না। এতেই ক্ষিপ্ত হয়ে তারা তার হাত-পা বেঁধে মারধর করে। বাচ্চাটির শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তারা তাকে খাসমহল সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময় পথেই তার মৃত্যু হয়। তারপরে তারা সালগাঝুরি স্টেশন থেকে একটি ট্রেনে ওঠেন এবং গালুডিহ স্টেশনে নেমেছিলেন, যেখানে দুজনে মিলে রেললাইনের কাছে ঝোপের মধ্যে দেহটি ফেলে দেন। তারপর দুজনেই চলে যান পশ্চিমবঙ্গের ঝাড়গ্রামে। আসলে মেয়েটির মামা বাড়ি ঝাড়গ্রামে।

প্রতিবেশীরা পুলিশে খবর দেন:

মঙ্গলবার দুজনে বারিগোদায় ফিরে এলে প্রতিবেশীরা তার মেয়ের কথা জিজ্ঞেস করেন। কিন্তু তারা সেভাবে কোনো সন্তোষজনক উত্তর দেননি। তারা দম্পতিকে সন্দেহ করে এবং সঙ্গে সঙ্গে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ কঠোরভাবে জিজ্ঞাসাবাদ করলে মা বাবা উভয়েই ভেঙে পড়েন এবং পুরো ঘটনার কথা জানান।

মেয়েকে মারধর করা হয়েছে:

অপরদিকে প্রতিবেশীরা জানান, মেয়েটির বাবা-মা তিন মাস ধরে বারিগোদায় একটি ভাড়া বাসায় থাকেন। বাবা-মা প্রায়ই শিশুটিকে মারধর করত। এমন অবস্থায় শিশুটিকে দেখতে না পেয়ে অভিভাবকদের কাছে জানতে চান তারা। তাদের এড়িয়ে যাওয়ার প্রবণতা ঘিরে প্রতিবেশীরা সন্দেহ করে যে মেয়েটিকে খুন করা হয়েছে এবং পুলিশকে খবর দেয়। এরপরেই সামনে আসে এই মর্মান্তিক ঘটনা।

Related posts

১১৮ বছর বয়সে এসে দীর্ঘায়ু হবার গোপন রহস্য জানালেন বিশ্বের প্রবীণতম মহিলা! কি সেই রহস্য

News Desk

কলকাতা পুলিশেও চালু ‘ওয়ার্ক ফ্রম হোম’, কী ভাবে চলবে কাজ?

News Desk

কোথাও অনুরোধ, কোথাও কড়া ভাষায়, কঠোর পুলিশি নজরদারিতে পশ্চিমবঙ্গ জুড়ে লকডাউনের প্রথম দিন

News Desk