Dainik Sangbad – দৈনিক সংবাদ
Image default
FEATURED ট্রেন্ডিং

চাকরির নাম করে নিয়েছেন ১ কোটির উপর টাকা! নিজ মুখেই মানলেন ভাঙরের ‘শিক্ষক’

চাকরি দেবেন এমন প্রতিশ্রুতি দিয়ে বেকারদের থেকে টাকা নেওয়ার অভিযোগ আবারও সামনে এলো। এবার কোনো রাজনীতির লোক নয়, কাঠগড়ায় ভাঙড়ের এক শিক্ষক। সেই শিক্ষকের নাম নুরউদ্দিন বৈদ্য।

কিভাবে এই ঘটনা এলো প্রকাশ্যে?

অনেকদিন ধরেই একটা চাকরির খুঁজছিলেন সাধন মণ্ডল নামে এক ব্যক্তি। ২০১২ সালে তিনি চাকরির পরীক্ষা দিয়েছিলেন। প্রাইমারিতে নিয়োগের জন্য হয়েছিলো পরীক্ষা। অভিযোগ, সেই সময় তাঁর থেকে ৮ লাখ টাকা চেয়েছিলেন নুরউদ্দিন বৈদ্য নামে ওই শিক্ষক। শুধু সাধন মণ্ডলই নন, এইভাবে আরও অনেকেই চাকরির জন্য তাঁকে টাকা দিয়েছিলেন বলে অভিযোগ এসেছে। ভেবেছিলেন কোনো ভাবে টাকা দিয়ে যদি মেলে চাকরি, তাহলে তো ভালই! কিন্তু চাকরি আর হয়নি। সব থেকে চাঞ্চল্যকর বিষয় হলো যে শিক্ষকের বিরুদ্ধে টাকা নেওয়ার অভিযোগ, সেই নুরউদ্দিন নিজেও কিছু মানুষের থেকে টাকা নেওয়ার বিষয়টি স্বীকার করেছেন।

সাধন মণ্ডলের বক্তব্য, “আট লাখ টাকা যদি দিয়েও দি, চাকরিটা তো মিলবে। আর এখন প্রাইমারি স্কুলের কাজ ও ভালো। মাইনেও খারাপ না। তাই আমরা টাকা দিতে রাজি হয়ে গিয়েছিলাম। ধার-দেনা করে, জায়গা জমি বিক্রি করে টাকা দি আমি ও আমার ভাই। মোট প্রায় ১০ লাখ ৪০ হাজার টাকা ওনাকে দি। চুক্তি ছিল, বাকি টাকা চাকরি মেলার পর দিতে হবে। কিন্তু দীর্ঘ সময় চলে গেলেও উনি আমাদের ঘুরিয়েই যাচ্ছেন। নানান সময়ে নানান রকম কথা বলছেন।” সাধন বাবুর বলেন, এমনকি তাঁকে একটি চাকরির নিয়োগপত্রও দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু শেষে দেখা যায় ওই নিয়োগপত্রটি ভুয়ো। প্রতারিত হয়ে তিনি বলেন, “চাকরি না দিতে পেরে অবশেষে ২০১৮ সালে তিনি স্ট্যাপ পেপারে লিখে দেন যে তিনি ১৩ জনের থেকে নিয়েছেন প্রায় ৮৪ লাখ টাকা। কিন্তু এখনও পর্যন্ত চাকরিও হয়নি আর আমরা আমাদের টাকাও ফেরত পাইনি। আর তো চাকরি হবে না… অন্তত আমাদের টাকাটা দিয়ে দিক।”

সব থেকে চাঞ্চল্যকর বিষয় হলো যে শিক্ষকের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ তিনি নিজেও এই অভিযোগ মেনে নিয়েছেন। এক ভিডিওতে তাঁকে বলতে শোনা যায় “আমি বেকার কিছু ছেলেকে কাজ দেব বলে টাকা নিয়েছিলাম। প্রায় ১৫ থেকে ২০ জনের কাছ থেকে টাকা নিয়েছিলাম। সব মিলিয়ে টাকার পরিমাণ হবে নাহলেও ১ কোটি ১০ লাখ। এই টাকা আমি দিয়েছিলাম আরামবাগের এক শিক্ষক কে। সে কিছু নিয়োগপত্র দেয়। কিন্তু পরে বুঝতে পারি এই সব নিয়োগপত্র নকল। আমি ওদের জানাই, আমি ফেঁসে গিয়েছি। আমি নিজের জায়গা জমি বেঁচে ওদের টাকা ফেরত দেব।”

Related posts

কৃষকের মৃতদেহ নিয়ে থানায় গোটা গ্রাম, উঠলো পুলিশের বিরুদ্ধে চাঞ্চল্যকর অভিযোগ

News Desk

গর্ভবতী স্ত্রীকে মায়ের কাছে রেখে এসে বেপাত্তা স্বামী! ফেসবুকে ছবি দেখে হতবাক স্ত্রী..

News Desk

অনলাইনে বিক্রি হওয়া প্রথম জিনিসটি কী জানেন? শুনলে চমকে উঠবেন

News Desk