Dainik Sangbad – দৈনিক সংবাদ
Image default
FEATURED রাজনীতি

অনেক VIP -এর গাড়িরই আনাগোনা ছিল, সিসিটিভি তে দেখা যাবে: অর্পিতার আবাসনের সম্পাদক

রাজ্য রাজনীতিতে আবারও শোরগোল।সারাবাংলা যে খবর দেখে উত্তাল হয়ে রয়েছে ঠিক সেই ঘটনাস্থল অর্থাৎ অভিনেত্রী অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের সেই ফ্ল্যাটের যিনি সম্পাদক তার বক্তব্য আরও বাড়িয়ে তুলছে প্রশ্ন। রাজ্য রাজনীতিতে অভিনেত্রী অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের নাম প্রথমবার উঠে এলো এবং বর্তমানে সেই নাম এখন সবথেকে বেশি চর্চিত হচ্ছে। কানাঘুষো খোঁজ পাওয়া গিয়েছে যে রাজ্যের বর্তমান শিল্পমন্ত্রী এবং প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ হলেন অভিনেত্রী অর্পিতা মুখার্জি। আর তারই ফ্লাটের থেকে গতকাল অর্থাৎ শুক্রবার দিন উদ্ধার হল মোট একুশ কোটি নগদ টাকা, তার সাথে বিদেশি মুদ্রায় ৫৬ লক্ষ টাকা এবং বিপুল সোনা গয়না এবং স্থাবর অস্থাবর মিলিয়ে প্রচুর সম্পত্তির নথি।

এই আয়ের এর উৎস স্থল জানার জন্য ইডি লাগাতার জিজ্ঞাসাবাদ এবং জেরা শুরু করেছিল শুক্রবার দিন অর্পিতা মুখার্জির বাড়িতেই। কোথা থেকে এতগুলো টাকা এবং এত বিপুল পরিমাণ সম্পত্তি তার কাছে এল এবং কার কার সাথে তার পরিচয় ছিল কার সাথে তিনি ঘনিষ্ঠ? এসবই ছিল প্রশ্নে? তার ফ্ল্যাটে কোন হেভিওয়েট নেতা আসছেন কি আসছেন কাদের আসা-যাওয়া বেশি ছিল এই সমস্ত প্রশ্ন এবং তার উত্তর খুঁজে পেতেই ইডি এই ম্যারাথন জেরা চালিয়েছে। ২১ কোটি টাকা শুধু খুঁজে পাওয়া গিয়েছে অর্পিতা মুখার্জি ডায়মন্ড সাউথ সিটি ফ্ল্যাট থেকে, তাছাড়া অন্যান্য জায়গা থেকে স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তির নথি এবং সোনা গয়না পাওয়া গেছে বিপুল পরিমাণে। ওই আবাসনে কর্মরত এক পরিচারিকা এদিকে জানিয়েছেন যে অর্পিতা মুখার্জি ওই ফ্ল্যাটে প্রায়শই আনাগোনা ছিল রাজ্যের প্রাক্তন শিক্ষা মন্ত্রী তথা বর্তমান শিল্পমন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের।

খোঁজ মিলেছে আরো অনেক কিছুরই। কলকাতা এলাকার বেলঘড়িয়া অঞ্চলেই অর্পিতা মুখার্জি তিনটি ফ্ল্যাট এবং জমি আছে। এছাড়াও আরও চারটি ফ্ল্যাট ডায়মন্ড সাউথ সিটিতেই রয়েছে। ক্লাব টাউন হাইটস নামক এক আবাসন রয়েছে বেলঘড়িয়ার রথ তলা এলাকায়। সেখানেই একটি ফ্ল্যাট রয়েছে “ব্লক 2” এ ফ্ল্যাট নম্বর “2A”এবং অপর ফ্ল্যাটটি রয়েছে “ব্লক 5” এ ফ্ল্যাট নম্বর 8A । অঙ্কিত চুড়োরিয়া আবাসনের সম্পাদক জানান, প্রত্যেক মাসেই অর্পিতা মুখোপাধ্যায় সেই ফ্ল্যাটে আসতেন শিল্পমন্ত্রী এবং মাঝেমধ্যেই প্রচুর লালবাতি ওয়ালা ভিআইপি গাড়ি আসতো। তবে সেই সমস্ত ভিআইপি হেভিওয়েট মানুষরা ওই ফ্ল্যাটে আসতো কিনা সে ব্যাপারে সঠিক তথ্য দিতে পারছেন না তিনি। তিনি এও জানিয়েছেন যদি রেজিস্টার খাতা ও অথবা সিসিটিভির ভিডিও ফুটেজ চেক করা হয় তা হলে জানা যাবে কোন ভিআইপি কোন ফ্ল্যাটে কার সাথে দেখা করতে যেতেন। তবে বর্তমানে অর্পিতার নামে এই দুটো ফ্লাইটি তালা ঝুলানো হয়েছে। অন্যদিকে অর্পিতার মা থাকেন বেলঘড়িয়ার দেওয়ান পাড়া এলাকার একটি বাড়িতে ।

ইডি সূত্রে প্রশ্ন, এই বিপুল পরিমাণ টাকা কোথা থেকে পেলেন? তাঁর আয়ের উৎস কী? এই প্রশ্নের কোনও উত্তরই জিজ্ঞাসাবাদে দেননি অর্পিতা। একইসঙ্গে বারবার বয়ান বদলের অভিযোগ তাঁর বিরুদ্ধে। এদিকে ইডির কেন্দ্রীয় আধিকারিকরা দাবি করেছেন যে তিনি কোনোভাবেই সহায়তা করছেন না ইডিকে। কোন প্রশ্নেরই উত্তর দিতে চাইছেন না তিনি । সূত্রের থেকে জানা গিয়েছে, ২১ কোটি নগদ, ৫০ লাখের সোনা ছাড়াও ইডি অর্পিতার বিপুল সম্পত্তির খোঁজ পেয়েছে। বেলঘড়িয়ায় তিনটি সম্পত্তি রয়েছে। সেখানে দু’টি ফ্ল্যাট এবং একটি বাড়ি রয়েছে অর্পিতার। বীরভূম জেলাতেও অভিনেত্রীর সম্পত্তি রয়েছে।

এখন এই দুর্নীতির শিকড় আর কত গভীরে এটাই দেখার।

তথ্যসূত্র: এই সময় ডিজিটাল

Related posts

৩০ বছরের মহিলার ২১ বছর বয়সী ছেলে! কিভাবে সম্ভব? প্রশ্ন সকলের

News Desk

একটি ছোট্ট ট্যাটু করতে চেয়েছিলেন! ট্যাটু আর্টিস্টের ভুলে এখন অনুশোচনা করছেন যুবতী

News Desk

কর করে ২৩ লক্ষ টাকা খরচ করে কিনেছিলেন কালো ঘোড়া, স্নান করাতে গিয়ে চক্ষু ছানাবড়া মালিকের

News Desk