Dainik Sangbad – দৈনিক সংবাদ
Image default
ট্রেন্ডিং

১২ শ্রেণীও পাশ করতে পারেনি, কিন্তু বুদ্ধির জোরে এই অটো চালকের মাসিক আয় শুনলে অবাক হবেন আপনি

চেন্নাইয়ে অটো চালায় অন্নুদারাই। হয়তো তিনি প্রথাগত স্কুল শিক্ষায় ১২ শ্রেণীর পড়াশুনাও শেষ করতে পারেনি কিন্তু তার বুদ্ধি আপনাকে অবাক করবে। কিভাবে অটো চালিয়েও নিজের গ্রাহককে সন্তুষ্ট রাখতে হয় তার সেরা উপায় আছে ৩৭ বছর বয়সী চেন্নাইয়ের এই অটো চালকের কাছে। তিনি অবশ্য এখন একজন সেলিব্রিটির থেকে কোনো অংশে কম নন। আয়ও মাসে লক্ষাধিক। ভারতের বাইরেও ছড়িয়ে পড়েছে তার নাম। পার্লামেন্টের মেম্বার শশী তারুর, বিজ্ঞাপন জগতের নামী ব্যক্তিত্ব প্রহ্লাদ কক্কর থেকে মাইক্রোসফটের সিইও ইত্যাদি নামী দামী মানুষের সঙ্গেও এক মঞ্চে বক্তৃতা দিতে ডাকা হয় আন্নাকে। কিন্তু কি করে এই সাফল্যের চূড়ায় উঠলেন তিনি। রইল সেই কাহিনী।

চেন্নাইয়ের মহাবলীপুরম রোডে অটো চালান অন্নুদারাই। পড়াশুনা বেশী দূর হয়নি তার। কিন্তু তার সবুজ হলুদ অটোতে মিলবে না হেন পরিষেবা নেই। মজুত আছে খবরের কাগজ, দেশি-বিদেশি ম্যাগাজিন, ছোট টিভি, ল্যাপটপ সহ ইন্টারনেট পরিষেবা। এমনকি তার অটোর যাত্রীদের জন্য থাকে চিপস, স্ন্যাকস, জল, কফি, ডাবের জলের ইত্যাদি নানা ব্যবস্থাও। তার বিস্তৃত জ্ঞানের পরিধি যাত্রীদের স্তব্ধ করে দিতে পারে। এই সব তার যাত্রীদের জন্য বিনামূল্যে। তিনি যাত্রীদের সাথে যেকোনো বিষয়ে কথা বলতে পারেন – স্টার্টআপ, উদ্ভাবনি, খেলাধূলা, ফ্যাশন ,ভাইরাল মার্কেটিং গিমিক্স, ইকোনমিক টাইমসের সাম্প্রতিক সংখ্যা, ফ্রন্টলাইন, এমনকি স্টিফেন হকিংসের কোনো তত্ব নিয়েও। আর এতেই হিট অন্নুদারাই। তার অটোয় চড়ার জন্য রীতিমতো স্লট বুকিং করেন যাত্রীরা। অটোয় যাত্রাপথের সময় বাঁধা। অটোয় বসার জায়গা আছে ছ’জনের। চেন্নাই, তথা ভারতে তথা বিশ্বে সে অটো আন্না নামে পরিচিত।

বেশী পড়াশুনা না করা আন্না পরিবারের আর্থিক অবস্থা ভীষণ খারাপ থাকায় পেশা হিসেবে অটো চালানোকে বেছে নেন। কিন্তু প্রথম থেকেই সে মন দেয় গ্রাহক পরিষেবায়। প্রথমে নিজের অটোতে আন্না শুধু খবরের কাগজ , ম্যাগাজিন রাখতেন। অটোতে যেতে যেতে তা পড়তে সবাই খুব ভালোবাসতেন। একদিন তার এক যাত্রীকে ল্যাপটপ না থাকায় খুব সমস্যায় পড়তে দেখেছিলেন। আবার একদিন আরেক যাত্রী বাড়ি থেকে ছাতা না নিয়ে বেরোনোয় ভিজতেও দেখেছিলেন। যাত্রীদের কথা ভেবেই অটোতে তিনি নানা ব্যাবস্থা রাখতে শুরু করেন।

Auto anna and his inspiring story

কিন্তু ছাতা নিয়ে যাত্রীরা ফেরত দেন কি। আন্না জানিয়েছে হ্যাঁ দিয়ে দেন। যাত্রীরা তার বন্ধুর মত ব্যাবহার করেন। তাঁর এই অটোর ব্যাপারে প্রথম খবর হয় ২০১৩ সালে। রাতারাতি তার অটি এবং তিনি দুই জনপ্রিয়তা পান। তাঁকে তাঁর অভিজ্ঞতার কথা শোনাতে ডেকে পাঠায় একটি সংস্থা। তার পর থেকে আজ অবধি বহু কর্পোরেট সংস্থা, ম্যানেজমেন্ট স্কুল তাকে ডেকেছে। হুন্ডাই, ভোডাফোন, রয়্যাল এনফিল্ড, টয়োটার ইত্যাদি নামী দামী কোম্পানি ও আইআইটি, আইএসবির মতো সংগঠনেও বক্তৃতা দিয়েছেন আন্না। এমনকি ‘টেডএক্স টক’ (Tedex Talk) -এও কথা বলার আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে আন্নাকে।

Related posts

চাকরি না পাওয়ায় অবসাদগ্রস্ত যুবককে কটূক্তি পাড়ার লোকের, মাঝ গঙ্গায় ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা যুবকের

News Desk

বাঁচতে পারেন ১৫০ বছর পর্যন্ত! বলছে গবেষণা

News Desk

ভারতের ফিরে আসা আটকাতে মরিয়া চেষ্টা নীরব মোদীর। প্রত্যর্পণ আটকাতে কি করলেন।

News Desk
0 0 votes
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x